খবরদেশ

ইদে লকডাউন শিথিল: সুপ্রিম কোর্টের ভর্ৎসনার মুখে কেরলের বিজয়ন সরকার

ইদে ৩ দিন লকডাউন শিথিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেরল সরকার। এই সিদ্ধান্তের জেরে সুপ্রিম কোর্টে সমালোচনার মুখে পড়তে হল পিনারাই সরকারকে। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিদের মতে মহামারীর সময় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া অন্ত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। সুপ্রিম কোর্টের তরফে বলা হয়েছে, এই সিদ্ধান্ত খুবই উদ্বেগের। এভাবে মানুষের বেঁচে থাকা অধিকারে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে।

কেরল সরকার তাদের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগকে খণ্ডন করে জানিয়েছে, গত ১৫ জুন থেকে এই বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। ব্যবসায়ীদের চাপে পড়েই যে এমন সিদ্ধান্ত, তাও জানিয়েছে প্রশাসন। কিন্তু তাতে সন্তুষ্ট নয় সুপ্রিম কোর্ট। এদিন বিচারপতি আরএফ নরিম্যান ও বিচারপতি বিআর গাবাইয়ের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, ‘‘সবচেয়ে মূল্যবান অধিকার বেঁচে থাকার অধিকার। কোনও প্রকারের চাপের জন্যই তাকে উল্লঙ্ঘন করা যায় না। যদি এই বিধিনিষেধে ছাড়ের ফলে কোনও অনভিপ্রেত ঘটনা ঘটে, সাধারণ মানুষ আমাদের কাছে সেই ঘটনা তুলে আনতে পারেন, তা হলে যথাযথ পদক্ষেপ করা হবে।’’কেরল সরকারের এই সিদ্ধান্তের ইতিমধ্যেই বিরোধিতা করেছে আইএমএ (ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন)। রাজ্যের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসও এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছে।

এই প্রসঙ্গে কাঁওয়ার যাত্রা বন্ধের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তের কথা তুলে ধরেন বিচারপতিরা। তাঁদের যুক্তি করোনা আবহে ধর্মীয় অনুষ্ঠান হলে তাতে মানুষের ক্ষতি হলে তা ধর্ম পালন হতে পারে না। উল্লেখ্য, এর আগে রথযাত্রাও সীমীত পরিসরে হয়েছিল সুপ্রিম বিধিনিষেধকে মাথায় রেখে।

নিবিড় ডেস্ক

About author

Articles

সমাজ ও সংস্কৃতির বাংলা আন্তর্জাল পত্রিকা ‘নিবিড়’। বহুস্বর এবং জনগণের সক্রিয়তা আমাদের রাজনৈতিক অবস্থান।
নিবিড় ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *