করোনা আপডেটখবরদেশরাজ্য

সংক্রমণ কমিয়ে আনতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলিকে লকডাউনের পরামর্শ সুপ্রিম কোর্টের

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের শৃঙ্খল ভাঙতে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারগুলিকে লকডাউন জারি করার পরামর্শ দিল শীর্ষ আদালত। অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা করার বিষয়ে শুনানির পর রবিবার লকডাউন সংক্রান্ত একটি নির্দেশও দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। যে শুনানিতে সুপ্রিম কোর্ট বলেছে, ‘অতিমারির দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণ মাত্রাছাড়া হয়েছে। আমরা কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারগুলিকে নির্দেশ দিচ্ছি, সংক্রমণ রোধে ভবিষ্যতে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে তা নিয়ে এখনই পরিকল্পনা করতে’। এই নির্দেশের পরই দেশের শীর্ষ আদালতের পরামর্শ, ‘কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারগুলোর কাছে আবেদন ভিড় এবং সুপার স্প্রেডার অনুষ্ঠানের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করুন। প্রাণঘাতী ভাইরাসের প্রকোপ রুখতে আপনারা লকডাউনের বিষয়টিও ভেবে দেখতে পারেন’।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে হাহাকার শুরু হয়েছে দেশ জুড়ে। প্রতিদিন সংক্রমণ পৌঁছে যাচ্ছে প্রায় ৪ লক্ষের কাছাকাছি। সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতালে বেড ও অক্সিজেনের ঘাটতিও দেখা গিয়েছে। করোনা সংক্রমণের রাশ যাতে গোটা দেশেই টানা যায় সেই বিষয়টিকে জোর দিয়ে কেন্দ্রকে দেখতে বলেছে সুপ্রিম কোর্ট। এমনকি লকডাউন করা হলে এই অবস্থা কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে আনা যায় কী না সেই ব্যাপারটিও কেন্দ্রকে দেখতে বলেছে শীর্ষ আদালত। এর সঙ্গেই সারা দেশে ভ্যাকসিনের ভিন্ন দামের বিষয়টিও আরও একবার পর্যালোচনা করে দেখতে বলেছে সুপ্রিম কোর্ট। তবে আদালতের তরফে এই কথাও জানানো হয়েছে, লকডাউন ঘোষণা করার আগে কেন্দ্রকে নিশ্চিত হতে হবে আর্থিক অবস্থার উপর যেন এর কোনও প্রভাব না পড়ে।

সংক্রমণের হার এখন এতটাই বেড়ে গিয়েছে যে হাসপাতালে রোগীকে ভর্তি করাতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। এই বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্যই সুপ্রিম কোর্ট রাষ্ট্রীয় নীতি তৈরির কথা বলেছে কেন্দ্রকে।

নিবিড় ডেস্ক

About author

Articles

সমাজ ও সংস্কৃতির বাংলা আন্তর্জাল পত্রিকা ‘নিবিড়’। বহুস্বর এবং জনগণের সক্রিয়তা আমাদের রাজনৈতিক অবস্থান।
নিবিড় ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *