খবরদেশরাজ্য

বিজেপিকে রুখতে দরকার রাজ্যগুলির ইউনিয়ন, রাকেশ টিকায়েতের সঙ্গে বৈঠকে জানালেন মমতা

রাজ্য সরকারগুলিরও একট ইউনিয়ন দরকার। কেন্দ্র কোনও রাজ্যকে হেনস্থা করলে, বাকিরা মিলে লড়াই করবে। বুধবার এই দাবি তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন নবান্নে এসে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন রাকেশ টিকায়েত। কৃষি আন্দোলনকে পূর্ণ সমর্থন জানানোর পাশাপাশি বৈঠক থেকেই মোদি সরকারের বিরোধিতা করেন মুখ্যমন্ত্রী । ইউপিএ-চেয়ারম্যান হবেন কিনা প্রশ্নের উত্তরে তাঁর স্পষ্ট উত্তর, মোদিকে তাড়াতে চাই।

বাংলায় বিধানসভা ভোটের আগে বিজেপি বিরোধী প্রচার করতে এ রাজ্যে এসেছিলেন কৃষক নেতারা। আগামী দিনেও বিভিন্ন রাজ্যে এই প্রচার চালানো হবে বলে জানালেন রাকেশ টিকায়েত। তিনি মমতার কাছে আর্জি জানান, বিজেপি-বিরোধী মুখ্যমন্ত্রীরা যাতে দিল্লির কৃষক আন্দোলনের জায়গায় যান। পরে মমতা জানান, করোনা সংক্রমণ কমলে যাওযার চেষ্টা করবেন। ‘বন্ধু’ মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে নিয়ে চিঠি দেবেন। এদিনের বৈঠকে ছিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, তৃণমূল নেতা যশবন্ত সিং, কৃষক নেতা যুদ্ধবীর সিং। কৃষক আন্দোলন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমাদের সাপোর্ট রয়েছে। সেখানে আমাদের প্রতিনিধি গিয়েছিলেন। সিঙ্গুরে আন্দোলন করেছি। যতদিন না দাবি পূরণ হয়। আমরা আছি। এছাড়াও বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকারের মোকাবিলায় সমস্ত বিরোধী রাজ্যগুলিতে এক হওয়ার বার্তা দেন মমতা। বললেন, ‘‘এক রাজ্যেকে বিজেপি আক্রমণ করলে, বাকি রাজ্যগুলিকে রুখে দাঁড়াতে হবে।’’

প্রসঙ্গত এই বৈঠকের দিনই বহু জায়গায় পেট্রোল/ডিজেল এর দাম ১০০ পেরিয়েছে। এই মূল্যবৃদ্ধি প্রসঙ্গে মমতার অভিমত, “ওরা কারো কথা ভাবে না। কোভিড ভ্যাকসিনের উপর জিএসটি লাগু করছে। এটা তো মানুষ মারার চক্রান্ত।”

নিবিড় ডেস্ক

About author

Articles

সমাজ ও সংস্কৃতির বাংলা আন্তর্জাল পত্রিকা ‘নিবিড়’। বহুস্বর এবং জনগণের সক্রিয়তা আমাদের রাজনৈতিক অবস্থান।
নিবিড় ডেস্ক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *